নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: Thuবার, 15th Jul, 2021

রিয়াদের অবসর নিয়ে যা বললেন তামিম

Share This
Tags
Print Friendly

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট চলাকালীন হুট করেই উত্তপ্ত বাংলাদেশের ড্রেসিংরুম। হারারে থেকে সেই উত্তাপ টের পাওয়া গেছে ঢাকায় বসেও। টেস্টের মাঝপথেই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ জানিয়ে দেন, এই টেস্টের পর আর খেলছেন না তিনি। এই টেস্টের দলেও ছিলেন না তিনি। তবে তামিম-মুশফিকের ইনজুরির কারণে জিম্বাবুয়ের উদ্দেশ্যে উড়াল দেয়ার আগে জানা যায়, সফরসঙ্গী হচ্ছেন রিয়াদও। একমাত্র টেস্টে খেলানোও হয় তাকে। দলের বিপদের মুহূর্তে হাল ধরে অপরাজিত ১৫০ রানের একটি ইনিংস খেলেন তিনি।

তবে বারবার টেস্ট দলে অবহেলিত হওয়ার পর এই ফরম্যাট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন টাইগার ক্রিকেটের পঞ্চপান্ডবের অন্যতম এই সদস্য।

টেস্ট শেষ হওয়ার পর শুরু হচ্ছে সীমিত সংস্করণের ক্রিকেট। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অপরিহার্য সদস্য মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে এবার পরিস্থিতি কিছুটা ভিন্ন। রিয়াদের অবসর ঘোষণার পর দলে এর ব্যাপক প্রভাব পড়ে। দেশে বসে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন গণমাধ্যমে বলেন, এমনটা তিনি কল্পনাও করতে পারেন নি। দলের ক্রিকেটাররাও এ ঘটনায় অনেকটাই চুপ থেকেছেন। তার প্রভাব ড্রেসিংরুমে এখনো আছে কিনা কিংবা ক্রিকেটাররা সেটিকে কিভাবে দেখছেন, এ নিয়ে প্রশ্ন করা হয় ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালকে। তবে তামিম জানালেন, রিয়াদের অবসরের রেশ কাটিয়ে উঠেছে টিম।

ম্যাচের আগে ভার্চুয়ালি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে প্রশ্নের জবাবে তামিম বলেন, ‘আমার কাছে মোটেও এমন মনে হয়নি। এটা একজনের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত, এটাকে সম্মান জানাতে হবে। এখানে হ্যাংওভার বা হতাশ হওয়ার কোনোকিছু নেই। আমরা এ ব্যাপারে খুব বেশি কথা বলতে চাই না। রিয়াদ ভাই আমাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। আমরা এখন দলের পারফরম্যান্সেই মনোযোগ রাখছি। এটা শুধু বলার জন্য বলছি না। আমাদের সাথে থাকলে বুঝতেন আসলেই এটা নিয়ে আমরা একফোঁটা চিন্তিত না। এটা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই আর সামনেও বলার কিছু থাকবে না। যা হওয়ার হয়ে গেছে।’

টেস্ট শেষে বাংলাদেশ দল ২দিন প্র্যাকটিস করলেও, ছিলেন না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দলের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচেও খেলেন নি তিনি। এর কারণ কি? এমন প্রশ্নের জবাবে ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘না না ভাই কোনো কারণ নেই। টেস্টে পাঁচটা দিন খুব কষ্ট করতে হয়েছে। এজন্য টেস্ট ম্যাচের পরের দিন কেউ প্র্যাকটিসে যায় না। যদি না টেস্ট ম্যাচটা কারও খুব খারাপ যায়। প্র্যাকটিস ম্যাচের সময় উনি বিশ্রাম নিতে চেয়েছেন বা আলাদাভাবে বিশেষ কোনো কাজ করতে চান। কাল (বুধবার) অনেক লম্বা সময় নেটে প্র্যাকটিসও করেছেন। এটা তাই উনার ব্যক্তিগত ইচ্ছা ছিল। তবে কোনো সমস্যা নেই, সবকিছু ঠিক আছে।’