নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: Thuবার, 18th Feb, 2021

লভ্যাংশ না দেওয়ায় রবির প্রতি অখুশি বিএসইসি

Share This
Tags
Print Friendly

২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাব বছরে মুনাফা সত্ত্বেও গত সোমবার মোবাইল অপারেটর রবির পর্ষদ ‘নো ডিভিডেন্ড’ ঘোষণা করেছে। অথচ কোম্পানিটির ঐ বছরে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে শূন্য দশমিক ৩৩ টাকা। এমন সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

তাই রবির শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিনিয়োগকারীদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছে বিএসইসি। ডিভিডেন্ড ঘোষণার পরের দিন অর্থাত্ গত মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আগারগাঁওয়ে সিকিউরিটিজ কমিশন ভবনে রবি আজিয়াটার শীর্ষ কর্মকর্তাদের তলব করে বিএসইসি। তলব করা শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বিএসইসি যে অখুশি সেটা বুঝিয়েছেন।

অবশ্য রবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, আমাদের বোর্ড অবশ্যই লভ্যাংশ দেবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই। সঠিক সময়, সঠিক মুহূর্তে এটা করতে চাচ্ছি। সেটা কত তাড়াতাড়ি হবে, তা বলা মুশকিল। কারণ এটা হচ্ছে বোর্ডের ব্যাপার। আমি যেটা বলতে চাচ্ছি তা হলো এত কম লভ্যাংশ দিয়ে কাউকে খুশি করা যাবে কি না, সেটা ক্রিটিক্যাল কনসার্ন।

গত মঙ্গলবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। বিএসইসির অসন্তুষ্টি ও তলবের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মাহতাব উদ্দিন বলেন, বিএসইসি খুশি না, তারা আশা করেছিল লভ্যাংশ দেওয়ার এবং আমি বলব না তাদের প্রত্যাশার কোনো অসুবিধা আছে। কারণ নিয়ন্ত্রক সংস্থা সবসময় চাইবেন প্রতিটি কোম্পানি ভালো লভ্যাংশ দিয়ে শেয়ারহোল্ডারদের খুশি রাখুক। আমরা বিএসইসির সঙ্গে পুরোপুরি একাত্মতা ঘোষণা করছি। ওনারা ওনাদের কনসার্নগুলো শেয়ার করেছেন এবং অবশ্যই ওনাদের কনসার্নগুলো আমরা বোর্ড মেম্বারদের সঙ্গে শেয়ার করব। সেই সঙ্গে কি কি অ্যাকশন নেওয়া যায়, সে ব্যবস্থাটা নেওয়ার চেষ্টা করব।