নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: শুক্রবার, 5th এপ্রিল, 2019

১৮ তলার অনুমতি নিয়ে ২৮ তলা ভবন

Share This
Tags
Print Friendly

Screen Shot 2019-04-05 at 08.18.04বনানীর ১৭ নম্বর রোডে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত এফআর টাওয়ারের পাশেই আহমেদ টাওয়ার। ১৮ তলার অনুমতি নিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে ২৮ তলা।ভবনে নেই কোনো বহির্গমন পথ। নিচতলা থেকে ২৩ তলা পর্যন্ত তিনটি লিফট থাকলেও বাকি ফ্লোরে সিঁড়ি বেয়ে উঠতে হয়। রাজউক কর্মকর্তারা বলছেন, ভবনের নকশার খোঁজে মালিকের অফিসে গিয়েও নকশার কাগজ মিলছে না। মালিক অফিসেই আসছেন না।

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অভিযানে এমন তথ্য বেরিয়ে এসেছে। অভিযানের চতুর্থ দিন বৃহস্পতিবার বনানী এলাকায় তিনটি ভবন পরিদর্শন করে দুটি ভবনে নকশাবহির্ভূত ত্রুটি পেয়েছে সংস্থাটি।

সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ১৭ নম্বর রোডে বিটিআই পার্ক প্লাজা, আহমেদ টাওয়ার ও এসএমসি ভবন পরিদর্শন করে রাজউকের অঞ্চল-৪-এর একটি টিম। প্রথম দুটি ভবনে নকশার ত্রুটি পাওয়া গেছে।

 এদিকে দুপরে উত্তরায়ও অভিযান চালানো হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বেশকিছু ভবনের বর্ধিত অংশ ভেঙে দেয়া হয়। একই সঙ্গে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানে দেখা যায়, বিটিআই পার্ক প্লাজা ভবনটি ১২ তলার অনুমোদন থাকলেও ১৩ তলা করা হয়েছে। ভবনে কোনো এক্সিট ওয়ে নেই। এদিকে আহমেদ টাওয়ার ভবনের নকশার খোঁজে মালিকের অফিসে গিয়েও নকশার কাগজ পাননি রাজউক কর্মকর্তারা। ভবনের সিকিউরিটি গার্ডরা জানিয়েছেন, কয়েকদিন ধরে ভবন মালিক অফিসে আসছেন না।

এ বিষয়ে রাজউকের পরিচালক মোহাম্মদ মামুন মিয়া জানান, এ এলাকায় যেসব স্থাপনা রয়েছে সেগুলোর মধ্যে কিছু কিছু ভবন মালিক ওপরে অবৈধভাবে ফ্লোর বাড়িয়েছে। আমরা ভবনগুলো পরিদর্শনে যাচ্ছি। তাদের নকশা দেখে কী কী অমিল রয়েছে সেগুলো খুঁজে বের করছি। আহমেদ টাওয়ারের নকশা এখনও হাতে না পেলেও আমরা জানতে পেরেছি, ভবনটির ১৮ তলার অনুমতি রয়েছে।

অন্যদিকে রাজউকের সহকারী অথরাইজড অফিসার আলী আযম মিয়া বলেন, এই ভবনটি ২৮ তলা করা হয়েছে। আমরা এই ভবনের নকশার কপি এখনও পাইনি। এ জন্য আহমেদ টাওয়ারে কয়েকবার এসেছি। কিন্তু যখনই আমরা আসি, তখনই মালিক থাকেন না। নকশা পেলে বলা যাবে এ ভবনটির মূলত কয় তলার অনুমতি রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এর আগেও এই ভবনটিতে এসে দেখেছি নির্মাণ কাজ চলছে। তখন আমরা সেটি বন্ধ করে দিয়েছিলাম। কিন্তু আবারও তারা কাজ শুরু করেছে। আজও বন্ধ করতে বলেছি। এসব বিষয় আমরা রাজউকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানাব। তারা যে সিদ্ধান্ত দেবে সে অনুয়ায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেব। এর আগে বনানীর ১৭ নম্বর রোডের ৩১ নম্বর বিটিআই পার্ক প্লাজা ভবন পরিদর্শন করে রাজউকের পরিদর্শন টিম। ভবনটি ১২ তলার অনুমোদন থাকলেও ১৩ তলা করা হয়েছে। ভবনটি আবাসিক বলে নির্মাণ করা হলেও সেটি বাণিজ্যিক ভবন হিসেবে ব্যবহার করছে কর্তৃপক্ষ।

এ ভবনটির বিষয়ে রাজউকের পরিচালক মোহাম্মদ মামুন মিয়া বলেন, রাজউকের নকশা অনুযায়ী ভবনটির ১২ তলার অনুমোদন রয়েছে। আবাসিক লাইসেন্স পেলেও ভবনটি বাণিজ্যিক হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। উপরে নকশাবহির্ভূত একটি ফ্লোর করা হয়েছে।

বনানীর ১৭ নম্বর রোডের এসএমসি ভবন পরিদর্শনের পর রাজউকের কর্মকর্তারা জানান, এ ভবনের নকশা আমরা দেখেছি। সেখানে বড় কোনো ত্রুটি খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে নকশা অনুযায়ী ছোট ছোট কিছু ত্রুটি রয়েছে। সেগুলোর বিষয়ে ভবন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এদিকে একই দিনে উত্তরায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় বিভিন্ন ভবনের সামনে নকশাবহির্ভূত স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হয় এবং কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

Show Buttons
Share On Facebook
Share On Twitter
Share On Google Plus
Share On Pinterest
Share On Youtube
Hide Buttons