নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: রবিবার, 3rd মার্চ, 2019

ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবসায়ীদের নামে মামলা

Share This
Tags
Print Friendly

965485CA-1B7C-4FDD-A338-1D26896724ADঅনেকেই ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে লাইক, শেয়ারের ব্যবসা করেন। এসব ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে ফেসবুক। গত শুক্রবার ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের পক্ষ থেকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট, লাইক ও ফলোয়ার ব্যবসায়ীদের নামে মামলা করা হয়েছে। চীনভিত্তিক তিন ব্যক্তি ও চার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বিক্রি ও প্রচারের জন্য ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, গুগল, লিঙ্কডইনের মতো প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করায় মামলা করার ওই বিষয় জানিয়েছে ফেসবুক।

ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ডেপুটি জেনারেল কাউন্সেল পল গ্রিওয়াল এক ব্লগ পোস্টে বলেছেন, ‘মামলা করার মাধ্যমে আশা করছি, এ ধরনের প্রতারণামূলক কাজের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান জানান দিতে পারব।’

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আদালতে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের পক্ষ থেকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট ঠেকাতে ওই মামলা করা হয়।

ফেসবুক বলছে, যাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে, তারা শুধু ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বিক্রি করে, তা-ই নয়, তারা আমাজন, অ্যাপল, গুগল, লিঙ্কডইন, টুইটারের মতো অনলাইন প্ল্যাটফর্মের জন্য ভুয়া অ্যাকাউন্ট তৈরি করে দেয়।

ওই মামলায় আদালতের মাধ্যমে ওই সব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট তৈরি ও প্রচারের বিষয়টি বন্ধ করার বিষয়টি চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া অবৈধ ট্রেডমার্ক ব্যবহারের অভিযোগও আনা হয়েছে।

প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা বলছেন, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খবর ছড়ানো ও ভুয়া অ্যাকাউন্ট নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ভুয়া অ্যাকাউন্ট শনাক্ত করে তা মুছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠান। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের ছয় লাখ ব্যবহারকারীর অনুসরণ করা ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

এর আগে গত ডিসেম্বর মাসে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ভুয়া পেজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিল ফেসবুক। ফেসবুকের নিউজরুমে দেওয়া এক পোস্টে বলা হয়, বাংলাদেশ থেকে খোলা নয়টি পেজ ও ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক। সমন্বিতভাবে ভুয়া পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বন্ধ হওয়া পেজগুলোর মধ্যে আছে বিডিএসনিউজ২৪ডটকম, বিবিসি বাংলা নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট, নিউজ দিনেররাত২৪ডটকম। তবে কোন ছয়টি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে, এখনো সেই তথ্য প্রকাশ করেনি ফেসবুক। ইন্টারনেটে নিরাপত্তা হুমকি মোকাবিলায় কাজ করা গ্রাফিকা নামে একটি কোম্পানিকে দিয়ে তদন্ত করায় ফেসবুক। তদন্তের পরই বাংলাদেশের নয়টি পেজ ও ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ফেসবুক বলেছে, যে নয়টি পেজ ও ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে, সেগুলোয় বাংলাদেশের বর্তমান সরকারের পক্ষে এবং বিরোধীদের বিপক্ষে ভুয়া তথ্য ছড়ানো হচ্ছিল।

ফেসবুক জানায়, বন্ধ হওয়া পেজগুলোর মধ্যে একটির ফলোয়ার সংখ্যা ছিল ১১ হাজার ৯০০ জন। বন্ধ হওয়া পেজগুলো বুস্ট করতে (বিজ্ঞাপন বাবদ) ৮০০ মার্কিন ডলার ব্যয় করা হয়েছে। এখানে ২০১৭ সালের জুলাইয়ে প্রথম বুস্ট করা হয়। আর সর্বশেষ গত নভেম্বরে বুস্ট করা হয়েছে।

ভারতের নির্বাচনের আগেও ‘অনলাইন সার্চ অ্যাড লাইব্রেরি’ চালু করার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক। ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিতে হলে তাঁর পরিচয় ও অবস্থান সম্পর্কে যাচাই করবে ফেসবুক।

গত জানুয়ারি মাসে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ভুয়া তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে ইরান ও রাশিয়া-সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দেয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিটিয়া জেমস সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়া লাইক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন। তিনি জার্মান ক্যালাসের অধীনস্থ একটি কোম্পানির বিরুদ্ধে ভুয়া অ্যাকাউন্ট তৈরির জন্য মামলা করেছেন, যা যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের প্রথম মামলা।

ফেসবুকের আইনি কর্মকর্তা গ্রিওয়াল বলেন, ‘আমাদের প্ল্যাটফর্মে ভুয়া কার্যক্রমের কোনো জায়গা নেই। এ ধরনের আচরণ শনাক্ত করতে ও ঠেকাতে আমরা পর্যাপ্ত সম্পদ বিনিয়োগ করেছি। প্রতিদিন হাজার হাজার ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করছি। আজকের মামলাটি আমাদের সেই প্রচেষ্টার আরেকটি অংশ।’

Show Buttons
Share On Facebook
Share On Twitter
Share On Google Plus
Share On Pinterest
Share On Youtube
Hide Buttons