নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: বৃহস্পতিবার, 9th নভে., 2017

‘জোর’ করে হাথুরুসিংহেকে রাখবে না বিসিবি

Share This
Tags
Print Friendly

হঠাৎ করেই এসেছে খবরটি। বাংলাদেশের ক্রিকেটের আকাশে বাজ পড়ার মতোই ঘটনা। যার হাত ধরে বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে দেখেছে ক্রিকেট বিশ্ব, সেই চন্ডিকা হাথুরুসিংহে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে। খরবটা যে সত্যি, সেটা নিশ্চিত করেছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান। কিন্তু কেন? আর সবার মতো প্রশ্নটা বোর্ড সভাপতির মনেও। তবে কারণটা যাইহোক, জোর করে হাথুরুসিংহেকে রাখবেন না বলে জানিয়েছেন তিনি সংবাদমাধ্যমকে।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের মাঝপথেই হাথুরুসিংহে দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন নাজমুলকে। যদিও সে সময় বিষয়টি নিয়ে তিনি কথা বলতে চাননি খেলা চলছিল বলে। চিন্তা করেছিলেন সিরিজ শেষে বিষয়টা নিয়ে কথা বলবেন শ্রীলঙ্কান কোচের সঙ্গে। কিন্তু এখন তার সঙ্গে যোগাযোগই নাকি করতে পারছে না বিসিবি! বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া নাজমুলের বক্তব্যটা এমন, ‘(দক্ষিণ আফ্রিকায়) খেলা চলাকালীন তার সঙ্গে এটা নিয়ে কথা বলিনি। সিরিজ শেষ হওয়ার পর যোগাযোগ করা হচ্ছে। প্রধান নির্বাহী (নিজামউদ্দিন চৌধুরী) চেষ্টা করছে, কিন্তু যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। কোনও সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না ওখান থেকে।’

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ শেষে হাথুরুসিংহে চলে গেছেন অস্ট্রেলিয়ায়। বিসিবির সঙ্গে পদত্যাগের বিষয় নিয়ে আর কথা হয়নি তার। এখন হঠাৎ করে তার পদত্যাগপত্র দেওয়ার ঘটনায় বিস্মিত বাংলাদেশের ক্রিকেটাঙ্গন। গত বছরও কিন্তু পদত্যাগ করতে চেয়েছিলেন লঙ্কান কোচ, যদিও বিসিবি প্রত্যাখ্যান করেছিল তা। এবার অবশ্য তেমনটা না করারই ইঙ্গিত বোর্ড সভাপতির। নাজমুল স্পষ্টই জানিয়ে দিলেন, ‘কেউ থাকতে না চাইলে জোর করার প্রশ্নই আসে না। যেটা করা উচিত, সেভাবেই করব। কেন যেতে চাচ্ছে, সেটা জানতে চাইব আমরা।’

কিন্তু চাইলেই কি যেতে পারবেন হাথুরুসিংহে? বাংলাদেশের সঙ্গে তার চুক্তির মেয়াদ ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তার আগে যেতে চাইলে অন্তত এক মাস আগে বিসিবিকে বিষয়টি জানাতে হবে তাকে। নাজমুল অবশ্য এই শর্তকে সামনেই আনতে চাইলেন না, ‘নোটিশ পিরিয়ড আছে। তবে থেকে লাভ কী? যদি না-ই থাকে কেউ, তার নোটিশ পিরিয়ড দিয়ে কী করব? যতদূর দেখেছি, তিনি পেশাদার মানুষ। হঠাৎ একটি চিঠি দিয়ে অস্ট্রেলিয়া গিয়ে চুপচাপ বসে আছেন, বিষয়টা কিছুটা অস্বাভাবিক।’

তা তো বটেই। তবে গোছানো একটা দল থেকে এভাবে কোচের চলে যাওয়াটা বাংলাদেশের জন্য নিঃসন্দেহে বড় ধাক্কার। নাজমুল অবশ্য বিষয়টির ব্যাখ্যা দিলেন এভাবে, ‘ধাক্কা কিনা জানি না। ক্রিকেটারদেরও অনেকে খুশি হবে হয়তো, অনেকে আবার বলবে ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে। তবে আমি ব্যাক্তিগতভাবে মনে করি, আমাদের একটা পরিকল্পনা ছিল, সেটি বাধাগ্রস্ত হবে তো বটেই।’

Show Buttons
Share On Facebook
Share On Twitter
Share On Google Plus
Share On Pinterest
Share On Youtube
Hide Buttons