নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: বৃহস্পতিবার, 3rd আগস্ট, 2017

লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের বিরুদ্ধে মতিয়ার চৌধুরীর আইনী ব্যবস্থা গ্রহন

Print Friendly

matiar Chyবিলেতের বাংলাদেশী বিভিন্ন মাধ্যমের সাংবাদিক, মিডিয়া কর্মীদের চ্যারিটেবল সংগঠন লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছেন কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যাক্তিত্ব,লেখক, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ও সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরী। উল্লেখ্য যে, গত ২৬ শে জানুয়ারীতে লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সমন্বয়ে গড়া তাদের আন-অফিসিয়াল হোয়াটস এপ গ্রুপে কিছু মন্তব্যের জের ধরে ্কিছু মতিয়ার চৌধুরীর সদস্য প্রাথমিক ভাবে সাময়িক ভাবে স্থগিত করা হয় এবং পরবর্তীতে স্থায়ী ভাবে বর্তমান কমিটির পুরো সময়ে বাদ করবার ঘোষনা দেয়া হয়।

এই ঘটনার জের ধরে মতিয়ার চৌধুরী লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিয়েছেন বলে জানা যায়। এই ব্যাপারে তাঁর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,

“যেহেতু আমি আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করেছি সে কারনে ব্যপারটিকে আমি সাব-জুডিস ম্যাটার হিসেবেই ধরে নিচ্ছি। আর সে কারনেই আমি এই বিষয়ে বিশদ মন্তব্য করতে চাচ্ছিনা। তবে এতটুকু বলতে পারব যে যেসব কারন দেখিয়ে, যেসব প্রক্রিয়া ও যে সব অভিযোগে আমার সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে সেগুলো সম্পূর্ণ ভাবে অবৈধ ও ক্ষমতার অপ-ব্যবহার হয়েছে বলে আমি বিশ্বাস করি। তবে আমার এই অভিযোগ সঠিক নাকি বেঠিক সেটি সিদ্ধান্ত দেবে ব্রিটেনের আদালত। ন্যায় বিচারের ক্ষেত্রে বৃটেনের আদালতের প্রতি আমার সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে। আমি সব সময়ই লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের মঙ্গল কামনা করি ও সাফল্য চাই কিন্তু কিছু ব্যাক্ত্যির কারনে আমাকে যে অবস্থার মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে সেটির জন্য আমি প্রতিকার চাই”

এদিকে মতিয়ার চৌধুরীর সদস্যপদ বাতিল নিয়ে বিলেতের কিছু মিডিয়া মতিয়ার চৌধুরী সম্পর্কে মিথ্যে ও মানহানি তথ্য প্রকাশ করেছেন বলে তিনি সেসব পত্রিকার বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করবেন বলে জানান এবং সে প্রক্রিয়া চলছে বলে আমাদের এই প্রতিবেদককে অবহিত করেন।

এই মামলার বিষয়বস্তু সম্পর্কে আরো বিশদ ভাবে জানবার জন্য আমরা মতিয়ার চৌধুরীর নিয়োগকৃত আইনী প্রতিষ্ঠান ই-ওয়ান সলিসিটরের আইনজীবিদের সাথে যোগাযোগ করলে তাঁরা এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করবেন না বলে আমাদের জানান। এই প্রতিষ্ঠানের কর্মরত, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন আইনজীবি আমাদের এই প্রতিবেদককে বলেন,

“এই বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। তবে আমাদের প্রতি যেহেতু আমাদের ক্লায়েন্টের নির্দেশনা রয়েছে এবং আমাদের কিছু মিডিয়া নীতি রয়েছে, সেহেতু আমরা এই বিষয়ে কোনো রকমের মন্তব্য করব না। আইনের যে নিয়ম-কানুন ও পদ্ধতি রয়েছে সেসব মেনেই আমরা এই মামলা পরিচালনা করছি এবং আমাদের ক্লায়েন্ট যাতে ন্যায়বিচার পান তাঁর জন্য আমরা সকল রকমের চেষ্টা করব”

এই ব্যাপারে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সাথে সাধারণ সম্পাদক মুহম্মদ জুবায়েরের সাথে তাঁর মোবাইলে ফোন করা হলে তিনি আমাদের প্রতিবেদককে ফোনে কোনো রকমের মন্তব্য করবেন না বলে জানান এবং ইমেইল করবার জন্য অনুরোধ করেন। পরবর্তীতে ইমেইল করা হলে তিনি ইমেইলের জবাব আর দেন নি।

সিদ্দিকুর/লন্ডন/৭৬৮৯

Show Buttons
Share On Facebook
Share On Twitter
Share On Google Plus
Share On Pinterest
Share On Youtube
Hide Buttons