নিজস্ব প্রতিবেদক | সর্বশেষ আপডেট: বৃহস্পতিবার, 26th মে, 2016

শিশু ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

Share This
Tags
Print Friendly
নরসিংদীর মনোহরদীতে শিশু ফাহিমা (১১) ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে এক আসামীকে মৃত্যুদ- দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার দুপুরে নরসিংদীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আহমেদ এই দ-াদেশ প্রদান করেন। একই রায়ে আসামীকে একলক্ষ টাকা অর্থদন্ডও ঘোষণা করা হয়েছে। মুত্যুদ-প্রাপ্ত আসামী হলেন মনোহরদী উপজেলার কাহেতেরগাঁও গ্রামের আলাউদ্দিন মিয়ার ছেলে কিরন মিয়া (২৮)। রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলী শরিফুল ইসলাম দর্পণ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, মনোহরদী উপজেলার কাহেতেরগাঁও গ্রামের নূরচান মিয়া ও কিরণ মিয়া গত বছরের জানুয়ারি মাসে একই গ্রামের শিশু ফাহিমাকে (১১) ধর্ষণ শেষে হত্যা করে। পরদিন বাড়ীর পাশে শিশুটির মরদেহ পাওয়ার পর এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়।
পুলিশের দেয়া চার্জশীট অনুযায়ী স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ এবং সাক্ষ্য পর্যালোচনা শেষে নরসিংদীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আহমেদ কিরন মিয়ার মৃত্যুদ-ের আদেশ দেন।
নরসিংদীর মনোহরদীতে শিশু ফাহিমা (১১) ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে এক আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
বুধবার দুপুরে নরসিংদীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আহমেদ এই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। একই রায়ে আসামিকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডও ঘোষণা করা হয়েছে।
মুত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন মনোহরদী উপজেলার কাহেতেরগাঁও গ্রামের আলাউদ্দিন মিয়ার ছেলে কিরন মিয়া (২৮)। রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলী শরিফুল ইসলাম দর্পণ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, মনোহরদী উপজেলার কাহেতেরগাঁও গ্রামের নূরচান মিয়া ও কিরণ মিয়া গত বছরের জানুয়ারি মাসে একই গ্রামের শিশু ফাহিমাকে (১১) ধর্ষণ শেষে হত্যা করে। পরদিন বাড়ির পাশে শিশুটির মরদেহ পাওয়ার পর এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়।
পুলিশের দেয়া চার্জশীট অনুযায়ী সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ এবং সাক্ষ্য পর্যালোচনা শেষে নরসিংদীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আহমেদ কিরন মিয়ার মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন।
Show Buttons
Share On Facebook
Share On Twitter
Share On Google Plus
Share On Pinterest
Share On Youtube
Hide Buttons